পড়াশোনায় মনোযোগ আনার উপায় (How to focus on studying at home)

আমাদের আজকের আর্টিকেলে আপনাদের সাথে আমি পড়াশোনায় মনোযোগ আনার উপায় নিয়ে আলোচনা করব।

পড়াশোনায় মনোযোগ আনার উপায়
পড়াশোনায় মনোযোগ আনার উপায়

অনেকেই আছেন যারা পড়াশোনায় মনোযোগ আনার উপায় সম্পর্কে জানতে চান তাদের জন্যই আমাদের আজকের এই লেখাটি। তাহলে আসুন আর কথা না বাড়িয়ে আজকের আলোচনা শুরু করা যাক।

পড়াশোনায় মনোযোগ আনার উপায় 

সকল কিছুতেই সমস্যা আছে আর তার সমাধান রয়েছে আজকে আমরা আমাদের লেখার মধ্যে আপনাদের সঙ্গে পড়াশোনায় মনোযোগ কিভাবে আনবেন বা কিভাবে পড়লে লেখাপড়ায় মনোযোগ আসবে সেই বিষয়টা শেয়ার করব।

মোবাইল ফোন কাছে রাখবেন না

আপনি যখন বই পড়বেন তখন আপনার হাতের কাছে মোবাইল ফোন ভুলেও রাখবেন না। মোবাইল ফোন কাছে রাখলে কিছুক্ষণ পরে পরে এসএমএস আসবে, আবার Notification আসতে থাকবে আর যেটা আপনার মনোযোগ নষ্ট করে দিবে।

 

একবার মোবাইল হাতে নিলে পড়তে ইচ্ছা করবে না বা সেদিন আর পড়া হবে না। আর এই রকমের যদি আপনি প্রতিদিন করেন তাহলে আপনার পড়া কোন দিন ও হবে না। তাই বই পড়ার সময়ে মোবাইল ফোন যতটা পারেন ধুরে সরিয়ে রাখবেন যাতে হাতের কাছে না থাকে।

নির্দিষ্ট সময়ে পড়তে বসুন

কোন সময়ে কোন সাবজেক্ট পড়বেন সেটা আগে থেকেই ঠিক করে রাখবেন। যে সাবজেক্টে আপনি কাচা মানে কম পারেন সেই সাবজেক্ট একটু বেশি করে পড়বেন। এক দিনের ৮ থেকে ১০ ঘণ্টা পড়বেন এই রকমের রুটিন বানাবেন না। বরং প্রতিদিন আপনি ৩ থেকে ৪ ঘণ্টা পর্যন্ত পড়বেন।

 

আর ৩০ থেকে ৪০ মিনিট পড়ার পরে আপনি ১০ মিনিটের মত বিরতি নিবেন। তারপরে  আস্তে আস্তে আপনার বিরতির সময় কমিয়ে নিবেন যেমন মনে করুন, ২ ঘণ্টা পড়ার পরে ১০ থেকে ১৫ মিনিট পর্যন্ত একটু রেস্ট করে নিতে পারেন বা আপনার সুবিধা মত কিছুটা সময় রেস্ট নিবেন তাহলেই হবে।     

বিছানাতে বসে পড়বেন না

আপনি পড়ার সময়ে বিছানা কিংবা ছোপাতে বসে পরবেন না সরাসরি পড়ার টেবিলে গিয়ে পড়তে বসবেন। আপনি যদি বিছানাতে বসে পড়েন তাহলে দেখা যাবে পড়তে পড়তে কিছুক্ষণ পরে ঘুমিয়ে যাবেন। কিন্তু পড়ার টেবিলে বসলে ঘুমাতে পারবেন না, তাই সব সময়তে পড়ার টেবিলে বসে পড়ার চেষ্টা করবেন।  

পর্যাপ্ত পরিমানে ঘুমাতে হবে:

একজন মানুষের প্রতিদিন ৭ থেকে ৮ ঘণ্টা পর্যন্ত ঘুমালেই হয়। কিন্তু আপনি যদি পর্যাপ্ত পরিমানে না ঘুমান তাহলে দেখা যাবে আপনাদের মস্তিষ্ক ঠিকভাবে কাজ করবে না। তাই আপনাদেরকে পর্যাপ্ত পরিমানে ঘুমাতে হবে। বাসায় যখন থাকবেন তখন ঘুমাবেন ক্লাসে বসে কখনোই ঘুমাবেন না।     

টার্গেট নিয়ে লেখাপড়া করবেন

আপনি যখন পড়তে বসবেন তখন একটা টার্গেট নিয়ে পড়বেন। যেমন গেল খেলার সময়ে আপনি একটা লেবেল জিততে পারলে পরের ধাপে যেতে পারেন ঠিক সে রকমের ভাবে করতে হবে। গেম খেলার সময় একটার পরে একটা লেবেল আসে কিন্তু তারপরে গেম খেলতে আমাদের  কোন রকমের বিরক্তি লাগে না। ঠিক সেই রকমের পড়াশোনাতে টার্গেট নিয়ে পড়তে হবে তাহলে মনোযোগ আসবে, পড়তে আর বিরক্তি লাগবে না। আশা করি যে, আপনারা আমার কথা বুজতে পারছেন।  

পানি খেতে হবে  

পড়ার সময়তে আমাদের  মস্তিষ্ক কিন্তু অনেক খাটনি করতে থাকে আর তার জন্য দরকার হয়ে থাকে অনেক বেশি পরিমানে পানি খাওয়ার! তাই আপনারা পড়তে যখন বসবেন পড়ার ফাঁকে ফাঁকে পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি খাবেন মানে আর্দ্র রাখবেন। তা নাহলে দেখা যাবে কিছুক্ষণ পড়ার পরে আপনি পড়া থেকে মনোযোগ হারিয়ে ফেলবেন।

খাবারের প্রতি খেয়াল রাখা লাগবে

Fast Food এর যে সকল আইটেম রয়েছে সেগুলো কম পরিমানে খেতে হবে। কারন ফাস্টফুড এর খাবারগুলো আমাদের শরীরের জন্য অনেক ক্ষতিকর। আপনাদেরকে প্রচুর পরিমানে শাকসবজি খেতে হবে আর সাথে অল্প পরিমানে মিষ্টি ও খেতে পারেন। অর্থাৎ, যে সকল খাবারে ভিটামিন আছে আপনাকে সেগুলো খেতে হবে।  

Post a Comment

Previous Post Next Post